ক্ষুধার্ত প্রাণীদের বাঁচাতে বৃষ্টির মতো খাবার ঝরছে অস্ট্রেলিয়ায়

ধামরাই নিউজ২৪:

দাবানল অস্ট্রেলিয়ার জন্য একেবারেই নতুন কোনো বিষয় নয়। তবে গত সেপ্টেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়া যে দাবানলে পুড়ছে, এই ভয়াবহতা অস্ট্রেলিয়ার জন্য নতুন। এই আগুনে কত যে প্রাণী মারা গেছে তার সঠিক সংখ্যা জানা না গেলেও সে সংখ্যা যে কয়েক কোটি পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে সে ইঙ্গিত ইতোমধ্যে পাওয়া গেছে।

কেবল আগুন থেকে বেঁচে যাওয়াটাই বনের প্রাণীদের জন্য যুদ্ধ শেষ হয়ে যাওয়া নয়। আগুন থেকে বাঁচার পর শুরু হয় তাদের খাবারের জন্য লড়াই। কারণ এমন অনেক তৃণভোজী প্রাণী আছে যাদের খাবারের পুরোটা পুড়েছে আগুনে। দেখা যাচ্ছে অনেক অংশে আগুন নেভার পর খাওয়ার কিছু পাচ্ছে না সেখানকার প্রাণীরা।

এরকম বিপদে থাকা প্রাণীদের মধ্যে অন্যতম হলো ওয়ালিবিজ (ছোট এক ধরনের ক্যাঙ্গারু)। দাবানল শুরুর আগে থেকেই এ প্রাণীদের সংখ্যা কমে আসছিল। আগুন লাগার পর সে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

তাই তাদের বাঁচাতে দারুণ এক পদ্ধতি নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এ ধরনের প্রাণীগুলোর জন্য আকাশ থেকে বৃষ্টির মতো করে খাবার ফেলা হচ্ছে। খাবার বলতে মূলত বিভিন্ন ধরনের সবজি ফেলা হচ্ছে হেলিকপ্টার থেকে।

Joanna Holman@joannamuses

Imagine how delighted and confused the wallabies will be to have it rain sweet potato https://twitter.com/matt_keanmp/status/1215900857436270592 …Matt Kean MP✔@Matt_KeanMPOperation Rock Wallaby – #NPWS staff today dropped thousands of kgs of food (Mostly sweet potato and carrots) for our Brush-tailed Rock-wallaby colonies across NSW #bushfires123K2:07 PM – Jan 11, 2020Twitter Ads info and privacy20.9K people are talking about this

দাবানলে পুড়ে যাওয়া অঞ্চলগুলো আবার আগের ধারায় না ফেরা পর্যন্ত এভাবে খাবার সরবরাহ চালিয়ে যাওয়া হবে।

Matt Kean MP✔@Matt_KeanMP

🦘
🥕
🥕
🥕
🥕

One happy customer #operationrockwallaby #AustralianFires

View image on Twitter

17.3K3:15 AM – Jan 12, 2020 · Sydney, New South WalesTwitter Ads info and privacy3,400 people are talking about this

এরই মধ্যে দাবানলে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন রাজ্যের বিস্তীর্ণ অঞ্চল পুড়ে ছাই হয়েছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪ জনে। দাবানলের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রচণ্ড দাবদাহকেই দায়ী করা হয়। এর সঙ্গে রয়েছে প্রচণ্ড খরা ও ঝড়ো বাতাসের তাণ্ডব। মনে করা হচ্ছে এ জন্যই এবার এত দীর্ঘ সময় ধরে দাবানল চলছে। এ ছাড়া দাবানলের অন্যতম একটা প্রধান কারণ হলো বজ্রপাত। বজ্রপাতের পর গাছে আগুন লেগে তা একসময় ভয়াবহ আকার ধারণ করে। ফলে বজ্রপাত কীভাবে কমানো যায় সেদিকে নজর দেয়ার কথা বলা হচ্ছে।